খাবার সময় পানি খেলে যেসব সমস্যা দেখা দেয়া

Jan 22, 2017 11:06 am

 

শরীরে পানির পরিমান ঠিক রাখতে প্রতিদিন কম করে ৮ গ্লাস পানি খাওয়া খুব জরুরি। আর যদি খুব গরম পড়ে অথবা ব্যায়ম করার অভ্যাস থাকে, তাহলে তো আরও বেশি করে পানি পান করতে হবে। তবে প্রশ্নটা অ্ন্য জায়গায়। অনেকেই খাওয়ার সময় খুব বেশি পানি খায়। এই অভ্য়াস কি শরীরের পক্ষে ভালো? তা নিয়ে আমরা আলোচনা করব।


আমরা যখন খাবার খাই, তখন শরীর সেই খাবার থেকে প্রয়োজনীয় পানি সংগ্রহ করে নেয়। সংগৃহিত সেই পানি পেটের ভিতর গিয়ে নানা কাজ করে থাকে। যেমন- ইন্টেস্টাইনের দেওয়ালকে পিচ্ছিল রাখতে পানি অনেকটা লুব্রিকেন্টর কাজ করে। সেই সঙ্গে শরীর থেকে ক্ষতিকর উপাদান বার করতেও সাহায্য় করে।


খাবার সময় অল্প পরিমাণ পানি খাওয়া যেতেই পারে। এমনটা করলে খাবার গিলতে সুবিধা তো হয়ই, তার সাথে সাথে পেট ভরে যাওয়ার কারণে আমরা খাবার কম খাই। ফলে ওজন বাড়ার আশঙ্কা কমে। প্রসঙ্গত, খাবার খাওয়ার আগে পানি খাবেন না। দেখা গেছে এমনটা করলে ক্ষিদে কমে যায়। এমনকি পছন্দের খাবার সামনে থাকলেও খেতে ইচ্চা করে না। তাই ভারি কিছু খাওয়ার আগে পানি খাওয়া উচিত নয়।


১. হাইড্রাক্লোরিক অ্যাসিডের কর্যক্ষমতা কমে যায়: খাবার খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্টমাকের মধ্য়ে থাকা হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড ক্ষরিত হয়। এটি খাবারকে ভেঙে হজমের সহায়ক করে দেয়। কেউ যদি খাবার সময় পানি খায়ে ফেলে তাহলে সেই পানি হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিডের সঙ্গে মিশে গিয়ে তার ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। ফলে গৃহিত খাবার হজম হতে চায়। দেখা দেয় বদ হজমের অসুবিধা।

২. কোষ্ঠকাঠিন্য: এক সময়ে গিয়ে আপনি এমন ধরনের রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। শুধু তাই নয় শরীরে পানির অভাব দেখা দিলে ক্লান্তি বোধও বেড়ে যায়, ফলে কর্মক্ষমতা কমতে শুরু করে।

৩. বদহজম হতে থাকে: খাবার খাওয়ার সময় পানি পান একেবারেই নয়। যদি খুব পানির তেষ্টা পায় তাহলে খাবার খাওয়ার আধ ঘন্টা আগে, আর খাবার খাওয়ার এক ঘন্টা পরে পানি খাবেন। এমনটা না করলে খাবার ঠিক মতো হজম হবে না।ফলে দেখা দেবে নানা অসুবিধা। তবে খেতে খেতে অল্প করে গরম পানি খাওয়া যেতেই পারে। যেমনটা আগেও বলেছি খাবার সময় অল্প পানি খেলে খাবার গিলতে সুবিধা হয়। তবে কখনই এক গ্লাসের বেশি নয়।