আল জাজিরার সম্প্রচার বন্ধের উদ্যোগ ইসরাইলের

Aug 06, 2017 11:01 pm
আল জাজিরা সম্প্রচার কেন্দ্র

 

আল জাজিরা টেলিভিশনের সম্প্রচার বন্ধের উদ্যেগ নিয়েছে ইসরাইল। সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন উপসাগরীয় দেশগুলোর পর এবার কাতারভিত্তিক আল জাজিরা টেলিভিশনের সম্প্রচার বন্ধ করতে চায় ইসরাইল। দেশটির যোগাযোগমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন, আল জাজিরা'র সাংবাদিকদের ক্রেডেনশিয়াল বাতিল করা হবে এবং চ্যানেলটির জেরুজালেম অফিস বন্ধ করে দেওয়া হবে।


জেরুজালেম থেকে আল জাজিরা ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের ঘটনা প্রবাহের ওপর সংবাদ পরিবেশন করে থাকে। ইসরাইলের অভ্যন্তরে আর্ন্তজাতিক চ্যানেল হিসাবে কোনো আরব চ্যানেল সম্প্রচারের সুযোগ পাচ্ছে। এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন ইসরাইলি মন্ত্রী আইয়ুব কারা। এই সংবাদ সম্মেলনে আল জাজিরার সাংবাদিকদের প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি।


মন্ত্রী বলেন, সুন্নি আরব দেশগুলোর আল জাজিরা বন্ধের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে আমরাও এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তিনি জানান, চ্যানেলটি সহিংসতার পক্ষের শক্তিগুলো ব্যবহার করছে।জেরুজালেম থেকে আল জাজিরার সাংবাদিক স্কট হেইডলার জানান, চ্যানেলটি আরবি ও ইংরেজি শাখার সব সাংবাদিকদের ক্রেডেনশিয়াল বাতিল করার অনুরোধ জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী। তবে এটা স্পষ্ট নয় কখন থেকে এই অনুরোধ কার্যকর হবে। এছাড়া দেশটিতে আল জাজিরার স্যাটেলাইট সম্প্রচার বন্ধেরও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী জানান, জেরুজালেমে আল জাজিরার কার্যালয় বন্ধে ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাজ করবে।


উল্লেখ্য, ২৬ জুলাই ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, তিনি জেরুজালেমে আলজাজিরার সম্প্রচার বন্ধ করতে চান। আল জাজিরা জেরুজালেমের উত্তেজনা নিয়ে স্পর্শকাতর সংবাদ প্রকাশ করছে এমন অভিযোগ এনে বুধবার এ হুমকি দেন তিনি।
এক ফেসবুক পোস্টে নেতানিয়াহু বলেন,আল জাজিরা টেম্পল মাউন্টকে (আল আকসা মসজিদ) ঘিরে সহিংসতা ছড়াচ্ছে। আমি আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বেশ কয়েকবার এই চ্যানেল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছি। আইনি জটিলতার কারণে যদি তা সম্ভব না হয় তবে ইসরাইল থেকে আল জাজিরাকে সরাতে প্রয়োজনে আমি আইন পাস করাতে উদ্যোগী হবো।


নেতানিয়াহুর এ বক্তব্য প্রকাশের কয়েক ঘণ্টার মাথায় প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বিবৃতি দেয় আল জাজিরা। বিবৃতিতে নেতানিয়াহুর বক্তব্যকে ‘নির্বিচারি ও শত্রুতাপূর্ণ’ উল্লেখ করে নিন্দা জানানো হয়। সম্প্রতি আল জাজিরা বন্ধে কাতারকে সৌদি জোটের দেওয়া শর্তের প্রসঙ্গ টেনে বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘নেতানিয়াহুর বক্তব্যটি চলমান বিদ্বেষপূর্ণ আক্রমণের অন্য আরেকটি পর্ব। ইসরাইল সরকার তাদের হুমকি কার্যকর করতে গেলে আল জাজিরা সব ধরনের প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেবে’।


এর আগেও বেশ কয়েকবার আল জাজিরার বিরুদ্ধে পক্ষপাতমূলক সংবাদ প্রচারের অভিযোগ এনেছিলো ইসরাইল। আলজাজিরার সম্প্রচার বন্ধে ইসরাইলের এই তৎপরতায় উপসাগরীয় দেশগুলোর ইন্ধন থাকতে পারে বলে অনেকে মনে করেন। বিশেষ করে সংযুক্ত আরব আমিরাত আল জাজিরার ওপর ভীষন ক্ষুদ্ধ। অপরদিকে দেশটির সাথে ইসরাইলের ঘনিষ্ট সর্ম্পক রয়েছে।