রাম রহিমের ডেরায় যা করেন বিরাট কোহলি

Aug 31, 2017 12:05 pm
বিরাট কোহলি


ভারতের স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিমের পায়ের কাছে বসে থাকা টিম ইন্ডিয়া ক্যাপ্টেনের একটি পুরনো ভিডিও আপাতত সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় করছে৷


একাধিক সাধিকা ধর্ষণের অভিযোগে রাম রহিমকে সদ্য ২০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরোর একটি বিশেষ আদালত৷


রাম রহিম যে একটি বর্ণময় পুরুষ, তাতে কোনো সন্দেহ নেই৷ তিনি একাধারে সাধু, স্পোর্টসম্যান, অভিনেতা, চিত্র পরিচালক, সুরকার, লেখক, সমাজকর্মী ও ‘ডন'৷ তাঁর ভক্ত ও অনুগামীদের সংখ্যা নাকি কয়েক কোটি৷ হরিয়ানা রাজ্যে ৭০০ একর জমি নিয়ে তাঁর ডেরা সাচ্চা সৌদা আশ্রম৷ বহু রাজনৈতিক নেতা নাকি তাঁর আশীর্বাদধন্য৷


একটি ভিডিও সাক্ষাৎকারে তাঁকে দাবি করতে শোনা গেছে যে, তিনি বিরাট কোহলি, শিখর ধাওয়ান, আশীষ নেহরা, জহির খান বা ইউসুফ পাঠানের মতো খেলোয়াড়দের কোচিং করেছেন – যখন উক্ত ক্রিকেটাররা ‘বাচ্চে', না ঠিক ‘বচ্চে' নয়, ‘ইয়ুথ' ছিলেন৷ ভিডিওতে রাম রহিম সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীকে বলছেন, তাঁর কাছে যে ভিডিও আছে, তা দেখলেই তাঁর কথার সত্যতা প্রমাণ হয়ে যাবে৷ এভাবেই বক্সার ভিজেন্দার সিংকেও ট্রেনিং দিয়েছেন রাম রহিম, বলে তাঁর দাবি৷


রাম রহিমের কথিত দ্বিতীয় ভিডিওটাই ভাইরাল হয়েছে৷ বেশ পুরনো একটি ভিডিও৷ কিন্তু ভিডিও-য় স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, বিরাট কোহলি বাঁ দিকে রাম রহিমের পায়ের কাছে বসে, পিছনে ডান দিকে দাঁড়ানো অবস্থায় পেসার আশীষ নেহরা৷


ভিডিওটি কেন ভাইরাল হলো, এর থেকে কী বোঝা গেল, এ সব প্রশ্ন এই ইন্টারনেটের যুগে বাতুলতা৷ সেলিব্রিটি খেলোয়াড় ও সেলিব্রিটি ধর্মগুরুর মধ্যে সংযোগটা প্রকৃতিদত্ত ও স্বাভাবিক – এবং সেটা শুধু আমাদের উপমহাদেশেই নয়৷


ডেরা সাচ্চা সওদার প্রধান আধ্যাত্মিক গুরু গুরমিত রাম রহিম সিং নিজেকে ‘সব সম্প্রদায়ের ঈশ্বর’ বলে ঘোষণা করে৷ দুই নারী ভক্তকে ধর্ষণের দায়ে ২০০২ সালে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়৷ সেই মামলায় রাম রহিম সিংকে দশ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত৷ ২৫ আগস্ট আদালত রাম রহিমকে দোষী সাব্যস্ত করলে তার ভক্তরা দুই রাজ্যজুড়ে ব্যাপক তাণ্ডব চালায়৷ নিহত হয় ৩৮ জন৷

ডয়েচে ভেলে