শাকিব-অপুর বর্তমান দিনকাল

Sep 05, 2017 05:20 pm
কেমন চলছে শাকিব-অপুর বর্তমান দিনকাল

 

কেমন চলছে শাকিব-অপুর বর্তমান দিনকাল, দুজন কি এক সাথেই থাকছেন নাকি সংসার করার সিদ্ধান্তটা ছিল মেকি? ছেলে আব্রাহামের প্রতি শাকিবের টান কেমন? এরকম আরো অনেক বিষয় নিয়ে কৌতূহলের শেষ নেই। লিখেছেন আলমগীর কবির

 

রূপালি পর্দায় প্রায় এক যুগ ধরে একক রাজত্ব করা এই জুটির ব্যক্তিগত বিষয়ে জানার আগ্রহটা বেড়েছে আরো একটি কারণে। চলতি বছর ১০ এপ্রিলে যে চলচ্চিত্র নিয়ে অপু বিশ্বাসের সাথে শবনম বুবলির কথাযুদ্ধ শাকিবের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে নিয়ে এসেছিল সেই ‘রংবাজ’ চলচ্চিত্র কোরবানির ঈদের মুক্তি পাবে। রংবাজের সাথে ‘অহংকার’ নামে আরো একটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা শাকিবের, দুটি ছবিতেই অভিনয় করেছেন বুবলি। যদিও বুবলির সাথে অপুর সম্পর্ক একেবারে বিপরীত মেরুতে। শাকিবকে বিষয়টি নিয়ে যতভাবেই প্রশ্ন করা হোক না কেন নীরবে প্রসঙ্গ পরিবর্তন করেছেন।


এই অবস্থায় শাকিব-অপুর বর্তমান দিনকাল নিয়ে অনেকেই দুলাচলে পড়েছেন। যে বুবলিকে স্ত্রী অপু সহ্যই করতে পারেন না তার সাথে শাকিবের বন্ধুত্ব বেশ জোড়ালো, এর প্রভাব কি তাদের সংসারে পরে না? প্রশ্নটা কঠিন হলেও উত্তরটা খুব সহজ। কারণ তাদের সংসারটা অন্যদের থেকে একটু ভিন্ন। টেলিভিশন লাইভে সন্তান কোলে বিয়ের খবর প্রকাশ করার পর শাকিব অপুকে নিয়ে সংসার করার ঘোষণা দিলেও তারা এখন পর্যন্ত আলাদা বাসাই থাকেন। সব কিছু মিটমাট হয়ে যাওয়ার পরও স্ত্রী-পুত্রকে শাকিব খান কেন এবং কতদিন দূরে দূরে রাখবেন? কিছুই বলতে চাইছেন না শাকিব। তবে অপু জানালেন শাকিব আসে তার বাসায়, তিনিও যান শাকিবের বাসায়। একাধিকবার অপুকে ঘরে তোলার কথা বলেছেন শাকিব। তবে চার মাসেরও বেশি সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও দুই তারকার ঠিকানা আলাদা। অপু থাকছেন নিকেতনে তার ফ্ল্যাটে, আর শাকিব থাকছেন গুলশান। মাঝেমধ্যে শাকিব তার সন্তানকে দেখতে নিকেতনে অপুর ফ্ল্যাটে আসেন। আবার অপুও মাঝেমধ্যে শাকিবের বাসায় যান।


এই অবস্থার মধ্যেও অপু বললেন আমাদের সংসার ভালো চলছে। তিনি বলেন, ‘অন্য সবার মতোই একসাথে থাকতে হবে ঘুরতে যেতে হবে। তার জন্য বাসায় বসে থেকে আমি অপেক্ষা করব, এমনটা আমি বিশ্বাস করি না।’ অপু বলেন, ‘কারো বৃষ্টি ভালো লাগে কারো শীত ভালো লাগে। আমারও একটি জগৎ আছে। আমার পরিবার আত্মীয় রয়েছে। তারও একটি জগৎ আছে। সেই জগৎ ছেড়ে হঠাৎ করেই চলে আসা বা আমার যাওয়া সম্ভব না। তবে শাকিব আমার এখানে আসে। আমিও তার বাসায় যাই। এভাবেই সংসার চলছে।’


কিন্তু তারপরও সংসার বলে একটি কথা আছে। একসাথে থাকাটাই একটি সংসার। সেই দিক থেকে আপনারা কি তাহলে একসাথে থাকবেন না? অপু হেসে বলেন, ‘হ্যাঁ থাকব। আমাদের একটি বাড়ি করার ইচ্ছা আছে। সেই বাড়ি করেই সেখানে উঠবো। আমাদের তো জায়গা রয়েছে নিকেতন ও উত্তরায়। এছাড়া শাকিবের দীর্ঘ দিনের ইচ্ছা বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় বাড়ি কিনবে। পরিকল্পনা করেই সব করব।’
চলচ্চিত্রে কাজের পরিকল্পনা সম্পর্কে অপু বলেন, ‘দীর্ঘ এক বছর পর রোজার ঈদে আমার রাজনীতি ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। দর্শকদের কাছ থেকে প্রত্যাশার মতোই সাড়া পেয়েছি। আগে আমার বাবা চাচার উৎসাহে আমি সিনেমায় অভিনয় করেছি। দর্শকদের ভালোবাসা পেয়েছি। তাই তাদের সম্মান যেন আমি দিতে পারি সেইরকম করেই কাজ করব।’ কিন্তু অপুর কাজ করাটাকে ভালো চোখে দেখেন না শাকিব খান। তিনি মনে করেন, এখন সংসারে মনোযোগী হওয়া উচিত অপুর তা না হলে সন্তানের ভবিষ্যৎ ভালো হবে না। শাকিব খান বলেন, ‘আমরা দুজনই যদি বেশির ভাগ সময় বাইরে থাকি তাহলে আব্রাহামের দেখভাল করবে কে?

বাইরের মানুষ দিয়ে সন্তান লালন পালনে আমি বিশ্বাসী নই। তাই আমি চাই অপু এখন শুধু সংসারের প্রতিই মনোযোগী হোক।’ শাকিবের এই কথার সাথে একমত নন অপু। তিনি বলেন, ‘অভিনয় করলে বা অন্য কাজ করলে সংসারের প্রতি মনোযোগ কমে যাবে সে কথায় আমি বিশ্বাস করি না। আমার মনে হয়, পরিকল্পনা করে পথ এগোলে বাইরের কাজ সংসার জীবনে কোনো বাধা হতে পারে না।’ অপু বলেন, ‘আগে যেভাবে কাজ করেছি এখন সেভাবে করা যাবে না এটা মানি। তাই সিলেক্টিভ কাজ করব, এখন থেকে।’ এই কাজের প্রস্তুতিও নিতে শুরু করেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। অন্যদিকে, শাকিব খান এখন ব্যস্ত ঈদে মুক্তি প্রতীক্ষিত দুই ছবির প্রচারণার কাজে। আগের ঈদে কলকাতার জিৎ অভিনীত ‘বস টু’ মুক্তি পেলেও এবারের ঈদে শাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বি শাকিব নিজেই। এ প্রসঙ্গে শাকিব বলেন, ‘ভালো গল্প পেলে দর্শক প্রেক্ষাগৃহে যায়। গত ঈদে সেটা আবারো প্রমাণ হয়েছে।

কোরবানির ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিগুলো দেখার পর দর্শকের আস্থার জায়গাটা যেন ঠিক থাকে সেভাবেই ‘রংবাজ’ এবং ‘অহংকার’ নির্মাণ করা হয়েছে।’ ঈদে স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে কি পরিকল্পনা করেছেন জানতে চাইলে শাকিব বলেন, ‘আব্রাহামের নামে একটা কোরবানি করব। অপুকে নিয়ে কোথাও বেড়াতে যাওয়ার ইচ্ছে আছে। সবচেয়ে আনন্দটা হবে ঈদে পর দিন, কারণ এইদিন অপু এবং আমার পরিবারের সবাইকে দাওয়াত দিব। এতে সবার সাথে একটা গেট টু গেদারও হয়ে যাবে।’

শাকিব-অপুর বিয়ে হয়েছিল ২০০৮ সালে ১৮ এপ্রিল। পরিবারের কাছের লোকজন সেই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন। শাকিবের ইচ্ছাতেই চলতি বছর এপ্রিল পর্যন্ত বিয়ের খবর গোপন রাখা হয়েছিল।